সংসদে সমালোচনা শুনে রেগে গেলেন মুহিত

abul maal

ঢাকা, নভেম্বর ২৭ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- ‘কথায় কাজ হয় না’- এক সংসদ সদস্যের মুখে এই সমালোচনা শুনে মঙ্গলবার সংসদে হঠাৎ রেগে যান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

তবে পরে স্পিকার আবদুল হামিদের কথায় শান্ত হলেও দেশের অর্থনীতি নিয়ে দেশ সমালোচনায় আগের মতোই হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

অধিবেশনে ভ্যাট বিল পাসের আগে সংশোধনী প্রস্তাব উত্থাপনের সময় স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ফজলুল আজিম অর্থমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “উনি সুন্দর সুন্দর কথা বলেন। কিন্তু, কোনো কাজ হয় না।”

এই বক্তব্যে রাগত স্বরে মুহিত বলেন, “তিনি (ফজলুল আজিম) বলেন, ‘আমি শুধু কথাই বলি’। তা হলে শোনেন- আমি এভাবে কথা বলি না। উনি আমাকে উত্তেজিত করে দিয়েছেন।”

এই সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তোফায়েল আহমদকে দেখা যায় অর্থমন্ত্রীকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করছেন।

এসময় স্পিকার হাসতে হাসতে অর্থমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “আপনাকে উত্তেজিত করলেও আপনি উত্তেজিত হবেন না।”

“মাননীয় স্পিকার, আপনি খুব ভালোভাবে পানি ঠেলে ঠাণ্ডা করে দিতে পারেন,” বলেন মুহিত।

এরপর তিনি অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের উন্নয়নের সূচক তুলনা করে বলেন, “তারপর, কোন দেশ আছে? আছে সে দেশ, সে দেশ, যে দেশ নিয়ে বিরোধী দল, বুদ্ধিজীবী ও সুশীল সমাজরা হতাশ।”

“বুদ্ধিজীবী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা এখন নিশ্চুপ আছে। কারণ বাংলাদেশের অর্থনীতি নিয়ে বিশ্ব ব্যাংক ও বিভিন্ন দেশ প্রশংসা করেছে। আমি বললে তারা বিশ্বাস করেন না, বিশ্ব ব্যাংক ও বাইরের লোক বললে বিশ্বাস করেন।”

অর্থমন্ত্রী বলেন, চীন, ব্রাজিল, তুরস্কসহ যে কয়টি দেশের অর্থনীতি ভালো অবস্থায় তাদের কাতারে বাংলাদেশও রয়েছে। গত চার বছরে গড়ে ৬ শতাংশের বেশি হারে প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

দেশের অর্থনীতির বর্তমান হাল নিয়ে সমালোচনার কারণে এর আগেও বিভিন্ন সময় হতাশা প্রকাশ করেন মুহিত।

গত ২০ নভেম্বর তিনি বলেন, “বিশ্ব মন্দার পর থেকে এ পর্যন্ত ভালো অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী দেশের মধ্যে শীর্ষ কাতারে রয়েছে বাংলাদেশ; অথচ দেশের মধ্যে এর তেমন প্রচারণা নেই।”

“আমি যা বলি, সংবাদ মাধ্যমে তা মিসকোট (ভুলভাবে উদ্ধৃত) করা হয়।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

The Weeklydesh newspaper