নৌমন্ত্রীর কাছে বহিষ্কারের প্রমাণ চেয়েছেন রফিকুল

rm

নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের কাছে বিএনপি থেকে বহিষ্কার হওয়ার প্রমাণ চেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম মিয়া। তিনি বলেন, ‘প্রমাণ দিতে পারলে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব; আর যদি না পারেন, আপনি মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেবেন।’
‘বেয়াদবির কারণে’ রফিকুল ইসলাম মিয়াকে বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল—নৌপরিবহনমন্ত্রীর এ বক্তব্যের জবাবে আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে রফিকুল ইসলাম মিয়া এ কথা বলেন। নৌমন্ত্রীর অশালীন বক্তব্যের প্রতিবাদে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট নামের একটি সংগঠন এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।
শাজাহান খানকে উদ্দেশ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আমি জানতাম না, পিতার গায়ে কোনো সন্তান আঘাত করতে পারে। ১৯৭৪ সালে গণবাহিনীর সদস্য থাকার সময় শাজাহান খানের নেতৃত্বে তাঁর বাবার (আওয়ামী লীগের নেতা) সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ছাত্রলীগের সমাবেশে হামলা হয়। সন্ত্রাসীরা তাঁর বাবার গায়েও আঘাত করেছিল।’
রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, ‘নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান যথার্থই বলেছেন, আমি তাঁকে চিনি না। যাঁরা চক্ষু ওঠানোর রাজনীতি করেন, মন্ত্রীর শপথ নিয়ে অন্যকে হত্যা করতে চান, এ-জাতীয় চরিত্রবান লোকদের আমি চিনতে চাই না।’ তিনি বলেন, ‘এ ধরনের অসভ্য, লুটেরা ও সন্ত্রাসীরা রাজনীতি ছেড়ে চলে যাক, এটাই আমি চাই।’
এ ঘটনায় নৌপরিবহনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এক আইনজীবীর দায়ের করা মামলা আদালতের গ্রহণ না করার সমালোচনা করেন রফিকুল ইসলাম মিয়া। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে বক্তব্য দেওয়ায় আমার বিরুদ্ধে ১৯টি মামলা করা হয়েছিল।’
এস এম মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির নেতা আবু নাসের মো. রহমতুল্লাহ, জাগপার নেতা আসাদুর রহমান প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

The Weeklydesh newspaper