দেশে কোনো সরকার নেই, এ সরকার অবৈধ

1

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া বলেছেন দেশে বর্তমানে কোনো সরকার নেই। এ সরকার অবৈধ সরকার।

বুধবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাবেক ফুটবলাররা সহ দেশের ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের বিএনপিতে যোগদান উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে গিয়ে এ কথা বলেন খালেদা জিয়া।

তিনি বর্তমান সরকারকে অভিযুক্ত করে বলেন, এ সরকার এমনকি খেলাধূলাতেও রাজনীতি এনেছে। এভাবে করলে দেশের উন্নতি হবে না বলেও উল্লেখ করেন খালেদা জিয়া।

খালেদা জিয়া আরও বলেন, এ সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য জাতিকে বিভক্ত করছে, বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে, বিভেদ ও হানাহানির চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, আজকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশকে গড়ে তোলার প্রয়োজন। সেই উদ্দেশ্য নিয়ে বিএনপি কাজ করছে।শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান এই কাজ শুরু করেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতা রক্ষা করে বিএনপিও ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে দেশের মানুষের কল্যানে কাজ করছে।

তিনি বলেন, এই সরকার প্র্রতিটি প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করেছে। সব জায়গায় দলীয় করণ করেছে। সর্বক্ষেত্রে যোগ্যদের বাদ দেয়া হচ্ছে। মেধাহীন ও অযোগ্য লোকদের এসব পদে বসানো হচ্ছে। সব জায়গায় শুধু দুর্নীতি আর দুর্নীতি।

খালেদা জিয়া বলেন, আমরা অতীতে কোনো সরকারের আমলে পুলিশের গুলিতে এত বেশি মানুষ মরতে দেখিনি।

নির্বাচনপূর্ব গত তিন মাসেই সরকারের হাতে বিএনপির ৩০৪ জন হত্যার শিকার হয়েছেন এবং ৫৬ জনকে গুম করা হয়েছে বলেও দাবি করেন খালেদা জিয়া।

খালেদা জিয়া বলেন, প্রতিনিয়ত কাগজ খুলে দেখি, শুধু হত্যা আর গুম। নিজেরা ক্ষমতায় থাকার জন্য এ সরকার যা করার দরকার তাই করছে। কিন্তু এগুলো বন্ধ করার জন্য প্রয়োজন গণতান্ত্রিক সরকার। অথচ এ সরকার গণতন্ত্রেও বিশ্বাস করে না, আইনের শাসনও বিশ্বাস করে না।

তিনি বলেন, এ সরকার বিচার বিভাগও দলীয় করণ করেছে। সর্বত্র আজ অরাজকতা। বিচারবিভাগের কোনো স্বাধীনতা নেই। এখানে সরকারের নির্দেশে কাজ হয়। পুলিশ প্রশাসনও নিরপেক্ষ নয়। সব দলীয় লোকদের বসানো হয়েছে। মিটিং মিছিলেও তারা গুলি চালায়। কোনো দেশের পুলিশ নিজের দেশের মানুষের ওপর গুলি চালায় না। সিভিল প্রশাসনও এমনভাবে দলীয় করণ করা হয়েছে যে ভালো লোকের কোনো জায়গা নেই।

রাত নয়টায় আয়োজিত এ যোগদান অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল ইসলামসহ ১৫ জন সাবেক ফুটবলার, ক্রীড়াবিদ এবং সংগঠক আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপিতে যোগ দেন। এ সময় খালেদা জিয়ার হাতে ফুলের তোড়া তুলে দেন তারা।

ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা হলেন ফুটবল দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল হক, ইমতিয়াজ আহমেদ নকিব, মাসুদ রানা, মিজানুর রহমান, আলফাজ আহমেদ, মতিউর রহমান মুন্না, এনামুল হক, অরূপ কুমার ও জিয়াউর রহমান, ক্রীড়া সংগঠক আলহাজ্ব কাজী শামীম তারেক, সালাউদ্দিন খোকন, জিয়াউর রহমান তপু, বজলুর রহমান ও মাসুদ।

যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড.ওসমান ফারুক এবং সাবেক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান পটল প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

The Weeklydesh newspaper