ডাকাতির দায়ে লন্ডনে ২ বাংলাদেশিসহ চারজনের জেল

1
দুই দফায় একটি ‘মানি ট্রান্সফার এজেন্সির’ ৩ লাখ ৪০ হাজার পাউন্ড ডাকাতির ঘটনায় দুই বাংলাদেশিসহ চারজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে লন্ডনের আদালত।

লন্ডনের ওল্ড বেইলি আদালতের বিচারক টিমোথি পন্টিয়াস বৃহস্পতিবার এই রায় ঘোষণা করে।

চার আসামি সেতু মিয়া (৩২), আকবর হোসেন (৪০), ভিন্টন মিডে (২৯) ও আবদিন হাসানের (২৩) মধ্যে প্রথম দুইজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত।

রায়ে সেতুকে ১২ বছর, আবদিনকে ৯, আকবরকে ৬ ও মিডেকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন বিচারক।

মামলার শুনানিতে বলা হয়, পূর্ব লন্ডনের বারাকাহ মানি ট্রান্সফার এজেন্সির কর্মীদের ওপর নিয়মিত নজর রেখে দীর্ঘ পরিকল্পনার মাধ্যমে ওই ডাকাতির ঘটনা ঘটানো হয়। ১৯৬৯ সালের সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র দি ইটালিয়ান জবের অনুকরণে ডাকাতি শেষে দুটো ছোট গাড়িতে করে পালিয়ে যায় আসামিরা।

প্রথম ঘটনাটি ঘটে ২০১১ সালের ৫ ডিসেম্বর। সেতু মিয়ার নেতৃত্বে হোয়াইট চ্যাপেলের কাছে বারাকাহর মালিক বাংলাদেশি হাফেজ আবদুল কাদিরের গাড়ি থামিয়ে তাকে পিটিয়ে ৩ লাখ ১০ হাজার পাউন্ড লুটে নেয় তারা।

পরে ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরার ভিডিও পরীক্ষা করে পুলিশ দেখতে পায় দুটি ছোট গাড়ি ডাকাতির বেশ কিছুদিন আগে থেকে নিয়মিত ওই মানি ট্রান্সফার এজেন্সির ওপর নজর রাখছিল।

ওই ঘটনার পর দলনেতা সেতু মিয়া গ্রেপ্তার হলেও জামিনে বেরিয়ে যান এবং অল্প দিনের ব্যবধানে আবার মাঠে নামেন।

পরের বছর ১৫ অক্টোবর আবারো ডাকাতির শিকার হয় প্রতিষ্ঠানটি। বারাকাহর কর্মী শাহীন আহমেদ ৩০ হাজার পাউন্ড জমা দিতে ব্যাংকে যাওয়ার পথে দুই ডাকাতের হামলার মুখে পড়েন। তাকে পিটিয়ে টাকার ব্যাগ লুটে নিয়ে যায় দু্ই ডাকাত। এরপর কাছেই অপেক্ষায় থাকা আরেক গাড়িতে চড়ে তারা চম্পট দেয়।

এবার পুরো ঘটনাটি একটি ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরায় ধরা পড়ে এবং তার ভিত্তিতে বিভিন্ন সময়ে আসামিদের গ্রেপ্তার করে লন্ডন পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

The Weeklydesh newspaper